Home / প্রচ্ছদ / মিশরের বিমান ছিনতাই : ৪ বিদেশী ও ক্রু বাদে যাত্রীরা মুক্ত

মিশরের বিমান ছিনতাই : ৪ বিদেশী ও ক্রু বাদে যাত্রীরা মুক্ত

২৯ মার্চ ২০১৬: চার বিদেশী ও ক্রু বাদে ছিনতাই হওয়া ইজিপ্টএয়ারের সব যাত্রীকে ছেড়ে দিয়েছে ছিনতাইকারীরা। সাইপ্রাসের লারানকা বিমানবন্দরে অবতরণের পর দুপক্ষের আলোচনার শেষে যাত্রীদের মুক্তি দেয় ছিনতাইকারীরা। ইজিপ্টএয়ারের অফিশিয়াল টুইটারে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ইজিপ্টএয়ার কর্তৃপক্ষ।

এর আগে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকালে ছিনতাইয়ের শিকার হয় মিশরের সরকারি এয়ারলাইন্স ‘ইজিপ্ট এয়ার’ এর এমএস১৮১ প্লেনটি। আলেকজান্দ্রিয়া থেকে উড্ডয়নের পর প্লেনটি ছিনতাই হয়। প্লেনটিতে ৮০ জনের বেশি যাত্রী ও ক্রু ছিল।

পরে সাইপ্রাসের লারানকা এয়ারপোর্টে প্লেনটি অবতরণ করে। সেখানকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এয়ারপোর্টে অবস্থান নিয়ে বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে। এসময় ওই বিমানবন্দরের সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়।

মিশরের সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থা গুলো জানায়, অভ্যন্তরীণ রুটের আলেকজান্দ্রিয়া থেকে কায়রোগামী বিমানটি একজন অস্ত্রধারী ছিনতাই করে।

বিমান কর্তৃপক্ষের মুখপাত্রের বরাতে আরো জানানো হয়, আলেজান্দ্রিয়া থেকে ছিনতাই করা বিমানটি সাইপ্রাসে অবতরণ করতে বলে ছিনতাইকারী। বিমানটি সাইপ্রাসে অবতরণের কথা নিশ্চিত করে দেশটির রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রি একটি রেডিও স্টেশন।

খবরে আরো বলা হয়, এ৩২০ বিমানটিতে ৮০ জনের বেশি যাত্রী ছিল। তবে প্রথমে এ৩২০’র কথা বলা হলেও পরে মিশরীয় বিমান বাহিনীর তরফ থেকে এক টুইট বার্তায় বলা হয়,  ‘আমাদের এমএস১৮১ বিমানটি নিশ্চিতভাবেই ছিনতাই হয়েছে। এ ব্যাপারে আমরা দ্রুতই অফিসিয়ালি বিবৃতি দিয়ে জানাবো।’

মিশরের বেসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলা হয়, বিমানটির পাইলট উমর আল-গামাল বিমান কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন বিস্ফোরকসহ একজন যাত্রী আত্মঘাতী হওয়ার হুমকি দিয়ে বিমানটি অবতরণে বাধ্য করে।

যাত্রীদের মুক্ত করা বিষয়ে ছিনতাইকারীদের সাথে আলোচনার চলে। কিন্তু অধিকাংশ যাত্রীদের মুক্তি দিলে ছিনতাইকারীদের কি চাওয়ার মুখে এই সমঝোতা হয়েছে সেটা স্পষ্ট না।

রেডিও সিবিওয়াইস জানায়, সাইপ্রাসের পুলিশ বিমানের দিকে অগ্রসর হতে চাইলে ছিনতাইকারী তাদের পিছিয়ে যেতে বলে। আর স্থানীয় সাংবাদিকতের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, অবতরণের কিছু সময় পরই বিমান থেকে কয়েকজন যাত্রীকে বাইরে বের হতে দেখা যায়।

এদিকে, ব্রিটেনের স্কাই নিউজ জানিয়েছে, বিমানটিতে অন্তত আট জন ব্রিটিশ নাগরিক রয়েছে।

গত বছরের অক্টোবরে মিশরের শার্ম আল-শেখ অবকাশ যাপন কেন্দ্র থেকে ২২৪ জন আরোহী নিয়ে রাশিয়া যাওয়ার পথে সিনাই উপদ্বীপে রাশিয়ার একটি বিমান বিধ্বস্ত হলে যাত্রীদের সবাই নিহত হয়।