Home / বিনোদন / গ্র্যামিতে টেলর সুইফটের জয়জয়কার

গ্র্যামিতে টেলর সুইফটের জয়জয়কার

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬: বিশ্ব সংগীতাঙ্গনের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার গ্র্যামির এবারের আসরে রেকর্ড গড়লেন টেইলর সুইফট এবং কেন্ড্রিক লামার। প্রথম নারী তারকা হিসেবে গ্র্যামিতে দুবার সেরার খেতাব জেতার রেকর্ড করেছেন সুইফট। তার ‘নাইনটিন এইটটি নাইন’ অ্যালবামটি বছরের সেরা অ্যালবাম নির্বাচিত হয়েছে। গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে সেরা অ্যালবামের পুরস্কার পেয়েছে টেলর সুইফটের ‘১৯৮৯’। এটি ছাড়াও সেরা পপ ভোকাল অ্যালবাম ও ‘ব্যাড ব্লাডে’র জন্য সেরা মিউজিক ভিডিওর পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। পাশাপাশি ‘আপটাউন ফাঙ্ক’ গানটির জন্য সেরা একক গানের স্বীকৃতি পেয়েছেন মার্ক রনসন। সেরা হবার দৌঁড়ে ‘আপটাউন ফাঙ্ক’ হারিয়েছে টেইলর সুইফট এর ‘ব্ল্যাঙ্ক স্পেইস’ এবং এড শিরানের ‘থিঙ্কিং আউট লাউড’ গান দু’টোকে। এদিকে নবাগত তারকা হিসেবে গ্র্যামির মঞ্চে স্বীকৃতি পেয়েছেন মার্কিন পপ তারকা মেগান ট্রেইনর। সেরা একক গান হিসেবে নির্বাচিত না হলেও বছরের সবচেয়ে সফল গানের খেতাব ঠিকই পেয়েছে ‘থিঙ্কিং আউট লাউড’’।

নিজের অনুভূতি ব্যাখ্যা করতে গিয়ে টেলর সুইফট বলেছেন, গ্র্যামিতে প্রথম নারী হিসেবে সেরা অ্যালবামের পুরস্কার পেলাম। তরুণীদের বলব, চলার পথে অনেকে তোমার সাফল্যকে দমাতে চাইবে কিংবা তোমার খ্যাতিতে ভাগ বসাতে চাইবে। কিন্তু আপনি যদি নিজের কাজের প্রতি দৃষ্টি দাও এবং নিজের পাশে জায়গা না দাও তবে তুমি যেখানে যাচ্ছো সেখানেই যাবে। তখন তুমি দেখবে যে, তুমি ও তোমাকে যারা ভালবাসে তাদের জন্যই তুমি সেখানে পৌঁছাতে পেরেছো। আর সেটি হবে পৃথিবীর সবেচেয়ে সেরা অনুভূতি।

তবে শিরানের গ্র্যামি জেতায় একটি ঐতিহাসিক বিজয় থেকে বঞ্চিত হলেন র‌্যাপার কেন্ড্রিক লামার। এদিকে সেরা কান্ট্রি অ্যালবাম হিসেবে স্বীকৃত হয়েছে ক্রিস স্টেইপলটনের ‘ট্রাভেলার’। লস এঞ্জেলস স্টেইপল সেন্টারে অনুষ্ঠিত গ্র্যামির এবারের আসরে আরো ছিল তারকা জাস্টিন বিবার, ডেমি লোভাটো এবং লিটল বিগ টাউনের পরিবেশনা। ১৯৫৯ সালে শুরু হবার পর এটি ছিল গ্র্যামির ৫৮ তম আসর।